কোরআন ও সহীহ সুন্নাহ ভিত্তিক বার্তা প্রচার করাই হল এই ওয়েবসাইটের মূল উদ্দেশ্য।।

আকীদাহ ও তাওহীদ

আক্বীদার স্পর্শকাতরতা এবং তা অনুধাবনে আমাদের অক্ষমতা

মূলঃ আব্দুর রাকীব বুখারী–মাদানী ডাউনলোড করে পড়ুন   আলহামদুলিল্লাহ, ওয়াস্ সালাতু ওয়াস সালামু আলা রাসূলিল্লাহ, আম্মা বাদ: সম্মানিত পাঠকমন্ডলী! মুসলিম জীবনে ‘আক্বীদা’ সর্বাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়, যার সারমর্ম হচ্ছে, দ্বীন ইসলামের এমন কিছু বিষয় যার প্রতি বিশ্বাস স্থাপন করা জরুরি। অর্থাৎ ইসলামের বিশ্বাসগত বিষয়াদিকে আক্বীদা বলা হয়, যা মূলত: ছয়টি বিষয়ের সমষ্টিঃ  ১- মহান আল্লাহর প্রতি বিশ্বাস। ২-মহান আল্লাহর …

আক্বীদার স্পর্শকাতরতা এবং তা অনুধাবনে আমাদের অক্ষমতা Read More »

লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদ রাসূলুল্লাহ তথা ‘কালেমা ত্বাইয়েবা’ কি শির্ক

রচনা ও ভাষান্তরঃ আবূ মুবাশশির আহমাদ বিন আব্দুত তাওয়াব আনসারী (আহমাদুল্লাহ সৈয়দপুরী) ডাউনলোড করে পড়ুন   সম্পাদনাঃ আবু হিশাম মুহাম্মাদ ফুয়াদ প্রশ্নঃ ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদ রাসূলুল্লাহ’ তথা ‘কালেমা ত্বাইয়েবা’ বলা কি শির্ক? জবাব : না। এটা শির্ক নয়। বরং একটি তাওহীদী বাক্য। জ্ঞানের স্বল্পতার কারণে আমাদের অনেকেই এই বাক্যটিকে শির্ক রূপে অনুধাবন করেছেন যা দুঃখজনক। নিম্নে আমরা কতিপয় দলীল পেশ করলাম …

লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু মুহাম্মাদ রাসূলুল্লাহ তথা ‘কালেমা ত্বাইয়েবা’ কি শির্ক Read More »

তিনটি মূলনীতি – যা জানা প্রত্যেক মুসলিম নর-নারীর উপর একান্ত কর্তব্য

মূলনীতিগুলো হলো:- প্রত্যেকে, ১। রব বা পালন কর্তা সম্পর্কে জানা। ২। দীন সম্পর্কে জানা। ৩। নবী মুহাম্মদ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম সম্পর্কে জানা। রব কে জানার পদ্ধতি : যদি প্রশ্ন করা হয়, তোমার রব বা পালনকর্তা কে? তখন উত্তরে বলবে, আমার রব হলেন আল্লাহ, যিনি আমাকে এবং সমস্ত সৃষ্টি জগতকে তার অনুগ্রহে লালন করছেন, তিনিই আমার …

তিনটি মূলনীতি – যা জানা প্রত্যেক মুসলিম নর-নারীর উপর একান্ত কর্তব্য Read More »

আকীদা ও বিশ্বাসের মূলকথা [ইমাম ইবনে আবী যায়দ আল কায়রাওয়ানী (মৃত্যু: ৩৮৭ হি:) কর্তৃক রচিত]

আকীদা ও বিশ্বাসের মূলকথা[ইমাম ইবনে আবী যায়দ আল কায়রাওয়ানী (মৃত্যু: ৩৮৭ হি:) কর্তৃক রচিত]▬▬▬➰▬▬▬ দীনের যে সকল বিষয় অন্তরে বিশ্বাস এবং মুখে উচ্চারণ করা আবশ্যক: 💠 আল্লাহর পরিচয়: ১) এ কথা অন্তরে বিশ্বাস করার পাশাপাশি মুখে উচ্চারণ করা আবশ্যক যে, আল্লাহই একমাত্র মাবুদ। তিনি ছাড়া সত্য কোন মাবুদ নাই। তার মত আর কেউ নাই। তার সমকক্ষ …

আকীদা ও বিশ্বাসের মূলকথা [ইমাম ইবনে আবী যায়দ আল কায়রাওয়ানী (মৃত্যু: ৩৮৭ হি:) কর্তৃক রচিত] Read More »

নবী-রাসূল, অলী-আউলিয়া, বুজুর্গ, আলেম প্রমুখের নিকট কি শাফায়াত প্রার্থনা করা যায়

নবী-রাসূল, অলী-আউলিয়া, বুজুর্গ, আলেম প্রমুখের নিকট কি শাফায়াত প্রার্থনা করা যায়? অথবা তাদের অসীলায় কি আল্লাহর নিকট কোন কিছু চাওয়া জায়েজ আছে? ১ম প্রশ্ন: অনেকে বলে, আমরা অলী-আউলিয়া ও বুজুর্গ লোকদের নিকট বিপদাপদ থেকে উদ্ধার কামনা করি। তবে তাদের নিকট আমরা যা চাই তা হল কিয়ামতের দিন যেন তারা আল্লাহর দরবারে আমাদের জন্য শাফায়াত করে। …

নবী-রাসূল, অলী-আউলিয়া, বুজুর্গ, আলেম প্রমুখের নিকট কি শাফায়াত প্রার্থনা করা যায় Read More »

মসজিদে কবর থাকলে তাতে নামায আদায় করার হুকুম কি?

প্রশ্নঃ কোন মসিজদে কবর থাকলে সেখানে নামায আদায় করার হুকুম কি? উত্তরঃ কবর সংশ্লিষ্ট মসজিদে নামায আদায় করা দু’ভাগে বিভক্তঃ প্রথম প্রকারঃ প্রথমে কবর ছিল। পরবর্তীতে তাকে কেন্দ্র করে মসজিদ নির্মাণ করা হয়েছে। এক্ষেত্রে ওয়াজিব হচ্ছে এই মসজিদ পরিত্যাগ করা; বরং মসজিদ ভেঙ্গে ফেলা। যদি না করা হয় তবে মুসলিম শাসকের উপর আবশ্যক হচ্ছে উক্ত মসজিদ …

মসজিদে কবর থাকলে তাতে নামায আদায় করার হুকুম কি? Read More »

তাবীজ-কবজ, রিং, বালা, সুতা ইত্যাদী ব্যবহার

প্রশ্নঃ তাবীজ লটকানো, রিং, তাগা পরিধান করা, হাতে লোহা বা রাবারের আংটা লাগানো, সুতা, পুঁতির মালা বা অনুরূপ বস্তু ব্যবহারের হুকুম কি? উত্তরঃ উপরোক্ত জিনিষগুলো ব্যবহার করা হারাম। নিন্মে রেফারেন্স সহ দলীল সমূহ পেশ করা হল: 1)      নবী করীম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেনঃ (من علق شيئا وكل إليه) “যে ব্যক্তি কোন জিনিষ লটকাবে, তাকে ঐ জিনিষের দিকেই সোপর্দ করে দেয়া হবে”।[১] …

তাবীজ-কবজ, রিং, বালা, সুতা ইত্যাদী ব্যবহার Read More »

ইলমে গায়েব দাবী করা

প্রশ্নঃ যে ব্যক্তি ইলমে গায়েব দাবী করবে, তার হুকুম কি? উত্তরঃ- যে ব্যক্তি ইলমে গায়েব দাবী করবে সে কাফের। কেননা সে আল্লাহ তাআ’লাকে মিথ্যাবাদী সাব্যস- করল। আল্লাহ তাআ’লা বলেন, قُلْ لَا يَعْلَمُ مَنْ فِي السَّمَاوَاتِ وَالْأَرْضِ الْغَيْبَ إِلَّا اللَّهُ وَمَا يَشْعُرُونَ أَيَّانَ يُبْعَثُونَ “হে নবী আপনি বলে দিন! আকাশ এবং জমিনে আল্লাহ ব্যতীত অন্য কেউ …

ইলমে গায়েব দাবী করা Read More »

অলীগণ কবরে জীবিত এই সংশয়ের উত্তরাদি

যারা মনে করে, অলীগণ মৃত্যুর পরেও কবরে জীবিত আছেন কিংবা কবরে তাদের জীবন পৃথিবীর জীবনের থেকেও উন্নত মানের, তাদের রয়েছে কিছু দলীল। আসলে এসব দলীল নয় বরং সংশয় মাত্র । আমরা এ স্থানে তাদের কিছু প্রসিদ্ধ সংশয় তুলে ধরবো এবং জবাব দেবার চেষ্টা করবো: প্রথম সংশয়: তারা বলে: অলীগণ মারা যায় না। কারণ উল্লেখ হয়েছে: ( …

অলীগণ কবরে জীবিত এই সংশয়ের উত্তরাদি Read More »

ইমাম ইবনে আবী যায়দ আল কায়রাওয়ানী রহ. রচিত আকীদা ও বিশ্বাসের মূলকথা

ইমাম ইবনে আবী যায়দ আল কায়রাওয়ানী (মৃত্যু: ৩৮৭ হি:) রচিত আকীদা ও বিশ্বাসের মূলকথা অনুবাদক: আব্দুল্লাহিল হাদী বিন আবদুল জলীল দাঈ, জুবাইল দাওয়াহ এন্ড গাইডেন্স সেন্টার, সউদী আরব ডাউনলোড করুন: আকীদা বিশ্বাসের মূল কথা (ওয়ার্ড ফাইল) দীনের যে সকল বিষয় অন্তরে বিশ্বাস এবং মুখে উচ্চারণ করা আবশ্যক: আল্লাহর পরিচয়: ১) এ কথা অন্তরে বিশ্বাস করার …

ইমাম ইবনে আবী যায়দ আল কায়রাওয়ানী রহ. রচিত আকীদা ও বিশ্বাসের মূলকথা Read More »

লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহ এর শর্তাবলীর বিবরণ ও এ সম্পর্কে অজ্ঞ থাকার ভয়াবহতা

মূল: শাইখ আল্লামা আবদুল আযীয বিন বায (রহঃ) অনুবাদ: মুহাম্মাদ আবদুল্লাহ আল কাফী সম্পাদনা: আব্দুল্লাহিল হাদী প্রশ্ন: লক্ষ্য করা যাচ্ছে মুসলিম মিল্লাতের অনেক মানুষ লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহ-এর অর্থ সম্পর্কে অজ্ঞ। যার ফলে এই কালেমার তাৎপর্য ও দাবীর বিপরীত বিভিন্ন কথা ও কাজে লিপ্ত হয়ে পড়েছে তারা। অতএব লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহ-এর প্রকৃত অর্থ কি? তার দাবী কি? আর …

লা-ইলাহা ইল্লাল্লাহ এর শর্তাবলীর বিবরণ ও এ সম্পর্কে অজ্ঞ থাকার ভয়াবহতা Read More »

আল্লাহর একত্ববাদ-যার কোন বিকল্প নেই

সংকলন: আব্দুল্লাহ আল বাকী ——————————— ভূমিকা:  ‘লা ইলা হা ইল্লাল্লাহ’ অর্থ আল্লাহ ছাড়া প্রকৃত কোন উপাস্য নেই। অর্থাৎ প্রকৃত ও সত্য ইলাহ একজনই আছেন। তিনি হলেন আল্লাহ রব্বুল আলামীন। তিনি ছাড়া আর যা কিছুর ইবাদত করা হয় যেমন মূর্তি, জ্বিন, সূর্য, কবর, পাথর, মাযার ইত্যাদি; এগুলো কারো না কারো মা’বূদ বা উপাস্য কিন্তু সবই বাতিল, অপ্রকৃত …

আল্লাহর একত্ববাদ-যার কোন বিকল্প নেই Read More »

মুসলিম ব্যক্তির ধর্ম বিশ্বাস

মুসলিম ব্যক্তির ধর্ম বিশ্বাস মূল লেখক: শাইখ জামীল জাইনু অনুবাদক: শাইখ আকরামুয যামান বিন আব্দুস সালাম প্রশ্নঃ ১. আল্লাহ কেন আমাদেরকে সৃষ্টি করেছেন? উত্তরঃ তাঁর ইবাদত করার জন্য এবেং কোন বস্তুকে তাঁর সহিত শরীক না করার জন্য। কোরআন হতে দলীলঃ {وَمَا خَلَقْتُ الْجِنَّ وَالْإِنْسَ إِلَّا لِيَعْبُدُونِ} (سورة الذاريات:56) “আমি মানব ও জ্বিন জাতিকে শুধুমাত্র আমার …

মুসলিম ব্যক্তির ধর্ম বিশ্বাস Read More »

আক্বীদাহ সংক্রান্ত কতিপয় গুরুত্বপূর্ণ মাসআলাহ (শেষ পর্ব)

৩১.প্রশ্ন: যাদুর বিধান কী? এবং যাদুকরের শাস্তি কী ? উত্তর: যাদুর বিধান হলো: কাবীরাহ গোনাহ, আর কখনো কুফরী। অবস্থা পরিপ্রেক্ষিতে যাদুকর কখনো মুশরিক, কখনো কাফির আবার কখনো ফিৎনা সৃষ্টিকারী হিসেবে গণ্য হয়ে থাকে। যাদুকরের কার্যক্রম অনুযায়ী কখনো তার শাস্তি হিসেবে তাকে হত্যা করা ওয়াজিব। এ প্রসঙ্গে আল্লাহ তা‘আলা বলেন: ﴿وَلَكِنَّ الشَّيَاطِيْنَ كَفَرُوْا يُعَلِّمُوْنَ النَّاسَ السِّحْرَ﴾ …

আক্বীদাহ সংক্রান্ত কতিপয় গুরুত্বপূর্ণ মাসআলাহ (শেষ পর্ব) Read More »

আক্বীদাহ সংক্রান্ত কতিপয় গুরুত্বপূর্ণ মাসআলাহ (পর্ব-৩)

আবদুল্লাহিল হাদী বিন আবদুল জলীল ২১. প্রশ্নঃ আল্লাহ তা‘আলা নাবী ও রাসূলগণকে দুনিয়ায় কী জন্য পাঠিয়েছিলেন? উত্তর: আল্লাহ তা‘আলা নাবী ও রাসূলগণকে দুনিয়ায় পাঠিয়েছিলেন, তাঁদের মাধ্যমে মানুষদেরকে আল্লাহর ইবাদতের দিকে তথা আল্লাহর একত্ববাদের দিকে দাওয়াত দেয়ার জন্য। আর আল্লাহর সাথে অন্য কাউকে অংশীদার স্থাপন করা থেকে মানুষদেরকে বিরত রাখার জন্য। আল্লাহ তাআলার কথাই এর দলীল। …

আক্বীদাহ সংক্রান্ত কতিপয় গুরুত্বপূর্ণ মাসআলাহ (পর্ব-৩) Read More »